সৌদিতে এক বাংলাদেশীকে গুলি করে হত্যা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

সৌদি প্রবাসী বাংলাদেশী মোবারক হোসেনকে সৌদি দুর্বৃত্তরা গুলি করে হত্যা করেছে । মোবারক হোসেনের গাড়ি আটকিয়ে সৌদি ছিনতাইকারীরা তার অর্থ-কড়ি ছিনিয়ে নিতে চায় । মোবারক হোসেন তাদের বাঁধা দিলে, মাথায় গুলি করে মোবারক হোসেনকে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা।

গত বৃহস্পতিবার রাত অনুমানিক ২ : ৩০ এর দিকে সৌদি আরবের তায়েক শহর থেকে ২০০কিলোমিটার দূরে আল খোরমা নামক সিটিতে খুন হন মোবারক হোসেন (২৮) । মোবারক হোসেন পানির গাড়ি চালাতেন । ঘটনার রাতে তিনি একাই পানির গাড়ি নিয়ে নির্দিষ্ট স্থানের পানির কুয়ো থেকে পানি ভরে আনতে যাচ্ছিলেন । কুয়োতে যাবার পথটি ছিল জনমানবহীন, মরুভূমির পথ । গভীর রাতে সুনসান মরুর পথে ২ জন সৌদি নাগরিক মোবারক হোসেনের গাড়ির পথরোধ করে । তার সঙ্গে থাকা মানিব্যাগ, মোবাইল, জোরপূর্বক ছিনতাইয়ের চেষ্টা করে । ছিনতাইকারীদের সঙ্গে মোবারক হোসেনের ধস্তাধস্তি হয় । তারা তাকে মারধর করে । তারপরও, মানিব্যাগ দিতে অস্বীকার করলে এক পর্যায়ে মোবারক হোসেনের মাথায় গুলি করে ছিনতাইকারীরা । মোবারক হোসেন ওখানেই লুটিয়ে পড়ে।

পরবর্তীতে সকাল ৬টার দিকে পুলিশ এসে মোবারক হোসেনের লাশ তুলে নেয় । পুলিশ তার সৌদি মালিককে কল দেয় । এরপর তার নিকটতম আত্মীয় স্বজনরা ধীরে ধীরে জানতে পারেন । বর্তমানে মোবারক হোসেনের লাশ আল খোরমা সেন্টার হসপিটালের মর্গে রয়েছে।

ঘটনাটি নিশ্চিত করেছেন, আল খোরমা থেকে নিহত মোবারক হোসেনের মামা জামির হোসেন ভুট্টু এবং দাম্মাম থেকে তার আপন খালাতো ভাই মোঃ সোহেল ! নিহত মোবারক হোসেন, পিতা- আব্দুল খালেক, নরসিংদী জেলা , থানা-নরসিংদী, পোস্ট অফিস নরসিংদী সদর, গ্রাম-ব্রাহ্মণ পাড়া ৩নং পানির ট্যাংক ।

জীবন ও জীবিকার প্রয়োজনে গত দুই বছর আগে মোবারক হোসেন সৌদি প্রবাসী হয়েছিলেন ।

আরো পড়ুন