সুবর্ণচর উপজেলা স্বাস্ব্য কমপ্লেক্সে দেড় লক্ষ টাকা অনুদান দিলেন এমপি একরাম

স্টাফ রিপোর্টারঃ সুবর্নচর উপজেলায় ডায়রিয়ার প্রকোপ বেড়ে যাওয়ায় সেলাইন সংকটে পড়ে সুবর্ণচর উপজেলা স্বাস্ব্য কমপ্লেক্সে, এতিপূর্বে একই পরিবারের ২ জন সহ ৩ জন ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে মারা যান। ডায়রিয়ার জন্য প্রর্যাপ্ত সেলাইনের ব্যবস্থা না থাকায় সঠিক চিকিৎসা পাচ্ছিলোনা রোগিরা।

পরে বিষয়টি সুবর্ণচর উপজেলা স্বাস্ব্য কমপ্লেক্সে এর আবাসিক মেডিকেল অফিসার শায়েলা সুলতানা ঝুমা সুবর্ণচর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুল্যাহ আল মামুন জাবেদকে অবহিত করলে জাবেদ নোয়াখালী ৪ আসনের (সদর-সুবর্ণচর) মাননীয় সংসদ সদস্য একরামুল করিম চৌধুরীকে অবহিত করেন। এমপি একরাম বিষয়টি জানার সাথে সাথে সেলাইন কেনার জন্য দেড় লক্ষ টাকা নগদ অনুদান দেন।

 

৬ জুন (রোববার) দুপুর ১ টায় সুবর্ণচর উপজেলা স্বাস্ব্য কমপ্লেক্সে আবাসিক মেডিকেল অফিসার কক্ষে অনুদান হস্তান্তর অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

এসময় নগদ দেড় লক্ষ (১,৫০,০০০) টাকা আবাসিক মেডিকেল অফিসার শায়েলা সুলতানা ঝুমা”র হাতে তুলে দেন, সুবর্ণচর উপজেলা ছাত্রলীগ আহবায়ক আব্দুল্যাহ আল মামুন জাবেদ, সুবর্ণচর উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক নৌকা প্রতিক নিয়ে ২ নং চরবাটা ইউনিয়ে চেয়ারম্যান প্রার্থী জনাব আমিনুল ইসলাম রাজিব, ২ নং চরবাটা ইউনিয়ন যুবলীগের আহবায়ক ফয়সাল আকাশ, সাংবাদিক ইমাম উদ্দান সুমন, ছাত্রলীগ নেতা বাবলুসহ ছাত্রলীগ, যুবলীগ নেতা কর্মিবৃন্দ।

 

পরে আবাসিক মেডিকেল অফিসার শায়েলা সুলতানা ঝুমা বলেন, প্রত্যন্ত অঞ্চলের এই স্বাস্ব্য সেবা চালিয়ে যেতে এমপি একরামুল করিম চৌধুরী যে অনুদান দিলেন সেটা সত্যই বিষ্ময়কর। আমি কখনো ভাবতে পারিনি তিনি রোগিদের জন্য এতে দ্রুত এই অনুদান দেবেন এতিপূর্বেও তিনি বিভিন্ন সময় হাসপাতালের নিজস্ব তহবিল থেকে অনুদান দিয়ে আসছেন।

 

আমিনুল ইসলাম রাজিব ও জাবেদ বলেন, করোনাকালে মাননীয় সংসদসদস্য একরামুল করিম চৌধুরী ঘরবন্ধী মানুষের জন্য খাবার পৌঁছে দিয়েছেন, এ সেটি এখনো অব্যাহত আছে, সুবর্ণচর উপজেলা স্বাস্ব্য কমপ্লেক্সে এমপি মহোদয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি, সুবর্ণচর এক মাত্র হাসপাতালটিতে তিনি সব সময় অনুদান দিয়ে আসছেন, এর আগে তিনি এ্যাম্বুলেন্স সহ বিভিন্ন সরংঞ্জাম প্রদান করেন।

এমপি একরামুল করিম চৌধুরীর হস্তক্ষেপের কারনে এগিয়ে যাচ্ছে এই হাসপাতালটি।

 

আরো পড়ুন