সুবর্ণচরে সীমানা বিরোধকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ আহত-৬

মোঃ ইমাম উদ্দিন সুমন, নোয়াখালী প্রতিনিধিঃ নোয়াখালী সুবর্ণচরে সীমানা বিরোধকে কেন্দ্র করে ঝগড়াঝাঁটি, হাতাহাতি হয় পরে সংঘর্ষ ছড়িয়ে পড়লে দুইপক্ষের মারামারিতে ৬ জন আহত হয়। । আহতরা বর্তমানে সুবর্ণচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৩ জন ও নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ৩ চিকিৎসাধীন আছেন।

 

ঘটনাটি ঘটে বেলা ১১ টায় ৯ এপ্রিল শনিবার সুবর্নচর উপজেলার মোহাম্মদপুর ইউনিয়ন ৫নং ওয়ার্ডের চরলক্ষী গ্রামে।

 

ভুক্তভোগী ফজলুল হকের পুত্র কামাল উদ্দিন (৪০), হেলাল উদ্দিন (৩২), রবি আলম (৩৫) বলেন, ঘটনার দিন আমাদের তাদের মালিকীয় দখলকার সম্পত্তিতে গাছ রোপন করে জায়গা দখলের চেষ্টা করে প্রতিবেশী মফিজুল হকের পুত্র নুর উদ্দিন (৪৫), নুর উদ্দিনের পুত্র সুমন (২৫), রিয়াদ হোসেন (২১), মোহাম্মদ হানিফের পুত্র বাসার (২৫) সহ অজ্ঞাত ৪/৫ জন।

 

এতে কামাল বাঁধা দিলে অভিযুক্তরা দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র দিয়ে হামলা করে গুরত্বর রক্তাক্ত আহত করে। পরে স্থানীয়রা তাদেরকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

 

অভিযুক্ত নুর উদ্দিন বলেন, এটা আমাদের পৈত্রিক সূত্রে মালিক, আমাদের সিমানায় আমরা কয়েকদিন আগে গাছ রোপন করেছি, হঠাৎ করে গতকাল কামাল উদ্দিন (৪০), হেলাল উদ্দিন (৩২), রবি আলম (৩৫) নেতৃত্বে ৩/৪ জন আমাদের গাছ কেটে পেলে এবং উপড়ে পেলে এতে আমরা বাঁধা দিলে তারা আমাদের ওপর আক্রমন করে আমাকে মেরে জখম করে আমার ছেলে সুমনের মাথা ফাটিয়ে পেলে পরে আমাদের আত্বীয়রা হাসপাতালে ভর্তি করে।

 

স্বরজমিনে গেলে স্থানীয়রা জানান প্রতিবেশী কামাল এবং নুর উদ্দিন দীর্ঘদিন ধরে জায়গাজমি সংক্রান্ত বিষয়ে বিরোধ চলে আসছিল। তারই সূত্র ধরে ঘটনাটি ঘটে ।

 

ঘটনার সাথে জড়িতদের সুষ্ঠ বিচারের জন্য চরজব্বর থানায় লিখিত অভিযোগ করেন বলে দাবী করেন আহত হেলাল এবং কামাল।

 

চরজব্বর থানার এসআই নুরুল ইসলাম বলেন, শুনেছি একটি অভিযোগ করেছে , আমি থানার বাহিরে নিশ্চিত হয়ে জানাবো এবং অভিযোগ করে থাকলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নিবো।

আরো পড়ুন