সুবর্ণচরে তুচ্ছ ঘটনায় গর্ভবতী নারিকে পিটিয়ে আহত

নোয়াখালী প্রতিনিধি: সুবর্ণচরে উপজেলার চর আমান উল্যাহ গ্রামে বাড়ির নিমানায় গুরু বাঁধাকে কেন্দ্র করে ৫ মাসের এক গর্ভবতী এক ও তার পুত্রকে মারধর করে আহত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। আহত ঐ নারী বর্তমানে সুবর্ণচর উপজেলা স্বাস্ব্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধিন আছে। আহত ঐ নারী সাতাসদ্রোন গ্রামের বেলাল হোসেনের স্ত্রী নার্গিস আক্তার (৩৪) ও তার পুত্র রাজিব হোসেন(১০)।

 

ঘটনাটি ঘটে ৬ মে বৃহস্পতিবার রাত ৯টায় চর আমান উল্যাহ ইউনিয়নের সাতাশদ্রোন গ্রামের বেলালের বাড়ীতে।

 

আহত নার্গিস বলেন “দুপুরে আমার বাড়ীর পাশের মফিজের চাষের জমিতে গরু বেঁধে আসলে রিয়াজ নার্গিসকে অকত্য ভাষায় গালমন্ধ করে এতে নার্গিস প্রতিবাদ করলে মফিজ উদ্দিন, তার পুত্র রিয়াজ, রিয়াজের পুত্র রিফাত নার্গিসকে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে আহত করে তার শৌরচিৎকার শিশু পুত্র রাজিব এগিয়ে এলে তাকেও মারধর করে আহত নারীর স্বামী বাড়িতে না থাকার সুডোগে তারা এমন বর্বর হামলা চালায় বলে অভিযোগ করেন নার্গিস বেগম। পরে তার স্বামী বেলাল ঘটনা শূনতে পেয়ে বাড়ীতে এসে ভুক্তভোগি নার্গিসকে হাসপাতালে ভর্তি করেন।

 

হামলাকারিরা একই গ্রামের মফিজ উদ্দিন(৪৫) তার পুত্র রিয়াজ(৩৫) রিয়াজের পুত্র রিফাত(১৮)

বেলাল হোসেন বলেন, “দির্ঘদিন মফিজ রিয়াজ আমাদের ওপর অমানুষিক নির্যাতন করে আসছে, আমরা গরীব মানুষ তাই বিচার পাইনা, আমার অঃত্বস্তা স্ত্রীকে মার ধরের ঘটনায় উপযুক্ত বিচার চাই, আমরা এ ব্যাপারে থানায় মামলা করবো।”

 

অভিযুক্ত রিয়াজের সাথে ঘটনার বিষয়ে জানতে চাইলে তাকে মুঠো ফোনে না পাওয়ায় তার বক্তব্য জানা সম্ভব হয়নি।
চরজব্বার থানার অফিসার ইনচার্জ বলেন, এবিষয়ে এখনো কিছু শুনিনি কেউ অভিযোগ দিলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

আরো পড়ুন