সুপ্তা চৌধুরীর ” ইচ্ছে ছিলো “

বিনোদন ডেস্ক

 –ইচ্ছে ছিল–
—সুপ্তা চৌধুরী—

অনেক ইচ্ছে ছিল তোমার হাতটি ধরে,
পিচ ঢালা রাজপথে চাঁদনী রাতে হেঁটে বেড়াবো।
অনেক ইচ্ছে ছিল,
ভালোবাসা দিবসে আমরা কাপল ড্রেস পরবো।
অনেক ইচ্ছে ছিল, অলস সময়ে তোমার বুকে মাথা রেখে;
কোন এক রোমান্টিক কবিতার বই পড়বো।
অনেক ইচ্ছে ছিল, রাত তিনটেয় তোমাকে ঘুম থেকে টেনে তুলে বলবো,
এই ওঠো, তুমি ঘুম জড়ানো গলায় বিরক্তি নিয়ে বলবে
কি হয়েছে?!
আমি বলবো উঠো, চলো চা খেতে বের হবো।
যেখানেই কোন টং ঘর খোলা পাবো, ব্যাস চা খাব।
তুমি বলবে হয়তো, ঘরেই বানিয়ে খাওনা আমি ঘুমুব!
বলবো আমি, ঘরে বানানো চা আর টং ঘরের চা কি আর এক হয় বোকা?
অনেক ইচ্ছে ছিল তোমার শেভিং ক্রিমে মাখা গালে গাল ঘসবো।
একসাথে বাজার করবো, তোমার জন্য খাবার নিয়ে অপেক্ষা করবো, তোমার অফিসে যাবার আগে কাপড় নিয়ে ঠায় দাঁড়িয়ে থাকবো।
একসাথে সূর্যোদয়, সূর্যাস্ত দেখবো।রংধনু আর বৃষ্টিতে মাখব দু’জন।

মাঝে মাঝে আমরা হলিডেতে পহাড়, সমুদ্র চড়ে বেড়াবো।
কখনও ঝগড়া হলে কথা বন্ধ থাকলেও, হুট করেই পিছন থেকে জড়িয়ে ধরবো।
আমরা ম্যাচিং ম্যাচিং কাপড় পরবো, রিক্সায় ঘুরবো।
মাঝে মাঝে একসাথে ঘুড়ি উড়াবো।

কত রকম রং বেরং এর শত শত ইচ্ছে আমার ছিল।
হয়তো আমার কল্পনাতেই তোমার সাথে আমি এগুলোই করি।

কারন আমার তো তুমিই নেই।
আমাকে বোঝার মত, আমাকে পালার মত, আমাকে সহ্য করার মত!
কখনও একটা তুমি আমার হলেও হয়তো আমিই আর থাকবো না এ জগতে।

আরো পড়ুন