সাতক্ষীরার শ্যামনগরে অতিবর্ষণে জনজীবন বিপর্যস্ত

স্বীকৃতি বিশ্বাস, বিশেষ প্রতিনিধিঃ

বাংলাদেশের দক্ষিণে বঙ্গোপসাগরের তীরবর্তী ও সীমান্তবর্তী সাতক্ষীরা জেলার শ্যামনগর, কালীগঞ্জ, মুন্সিগঞ্জসহ সমগ্র এলাকাটি প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের লীলাভূমি হিসাবে খ্যাত। ঝড়,বন্যা,জলোচ্ছ্বাস,অতিবৃষ্টি ও দীর্ঘদিনের জলাবদ্ধতা যেন প্রতিটি মানুষের জীবনের সাথে ওতোপ্রোতভাবে জড়িয়ে আছে। কিছুদিন পূর্বে সংগঠিত ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের আঘাতে ক্ষতবিক্ষত হয়েছিল ঘরবাড়ি, ফসলের মাঠ, মাছের ঘের ও সমূদ্রের জোয়ারের থেকে রক্ষা করার বেড়িবাঁধ।

অত্র এলাকার সর্বসাধারণের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় বেড়িবাঁধ সংস্কার করে নতুন করে বাঁচার স্বপ্ন দেখতে শুরু করেছিল ঠিকই তখন আবার গত কয়েকদিনের নিম্নচাপ জনিত ভারী বর্ষণে সাতক্ষীরা জেলার শ্যামনগর উপজেলার কাশিমাড়ী ইউনিয়নসহ পার্শ্ববর্তী কয়েকটি ইউনিয়নের শতাধিক লোকের ঘরবাড়ি,রাস্তাঘাট,পুকুর,ফসলের মাঠ ও সাদা সোনার জন্য খ্যাত চিংড়ি মাছের ঘেরগুলি তলিয়ে একাকার হয়েগেছে। শতাধিক লোকের বাড়িঘর ও গোয়ালে পানি উঠায় বাড়ি ছেড়ে অনেকেই উঁচু রাস্তার উপর আশ্রয় নিতে বাধ্য হয়েছেন।

বৃষ্টির পানিতে ঘরবাড়ি তলিয়ে যাওয়ায় রাতে ঘুমানো, রান্না খাওয়াসহ সার্বিক জনজীবন বাঁধা গ্রস্থ হচ্ছে।কিন্তু গত ২দিন হয়ে গেলেও এই সকল জনগনের খোঁজ খবর নেওয়ার জন্য কোন সরকারি কর্মকর্তা বা স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের দেখা যায়নি ফলে স্থানীয় জনগণের মধ্যে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে।

আরো পড়ুন