শরীয়তপুরের নড়িয়ায় শীর্ষ ডাকাত বাহিনীর হামলায় আহত ২

নিজস্ব প্রতিনিধি

শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলার জয়বাংলা বাজার এলাকার মজিবুর মোল্ল্যার বাড়ির সামনে বাবুল ওরফে শীর্ষ বেবুল ডাকাত সংঘটিত হয়ে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে মজিবুর মোল্ল্যার বাড়ির সামনে তার স্ত্রী ও তার দুই ছেলের উপরে আকস্মিকভাবে গাছের ডালাপালা দিয়ে বেধড়ক মারধর করে।

গত বুধবার সকাল ১০ ঘটিকার এ ঘটনা ঘটে।
সশস্ত্র ডাকাতেরা ঘরের লোকজনকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে আহত করে হাতের এন্ড্রয়েড মোবাইল, স্বর্ণালংকার লুট করে নিয়ে যায়। এ সময় ডাকাতদের আনা গাছের ডালার আঘাতে মো. সবুজ মোল্লা (২২) ও বুলু বেগম (৪৫) আহত হয়েছেন।
আহত সবুজ মোল্লার অবস্থা আশংকাজনক।

এ বিষয়ে নড়িয়া থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়।

আহত ব্যক্তিদের নড়িয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে জরুরী ভিত্তিতে চিকিৎসা দেওয়ার জন্য ভর্তি করা হয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত বুধবার আনুমানিক সকাল দশটার দিকে ওই এলাকার মজিবুর মোল্লার বাড়িতে ০৫-০৬ জনের একদল নামকরা শীর্ষ সশস্ত্র ডাকাত বাহিনী হানা দেয়। ডাকাতেরা সবুজ মোল্লা ও রাসেল মোল্লা কে ক্ষেতে চাষাবাদ করার সময় ডাকাত দল বেবুল বাহিনী ঘিরে ফেলে। এ সময় নিরীহ সবুজ মোল্লা ও তার মা বুলু বেগম এবং সবুজ এর ছোট ভাই রাসেল মোল্লাকে বেধড়ক মারধর আহত করে।

আহত সবুজ মোল্লা জানান, ডাকাতেরা তাঁদের গুরুতর ভাবে মেরে জখম করে এক পর্যায়ে ডাকাত বাহিনী রাম দা দিয়ে কুপানোর জন্য এগিয়ে এলে সবুজ মোল্লার ছোট ভাই রাসেল মোল্ল্যা তার ভাই সবুজ মোল্লাকে নিয়ে ঘটনাস্থল থেকে সরিয়ে নিয়ে যান।এ সময় তার মা বুলু বেগমকে ডাকাত দল মেরে কাপড় চোপড় ছিড়ে ফেলে ও শ্লীলতাহানি করার চেষ্টা চালান পরে আহত বুলু বেগমকে আহত অবস্থায় মাটিতে ফেলে তার গলায় ৮ আনি স্বর্নের চেইন টেনে নিয়ে যায়। সবুজের হাতের এন্ড্রয়েড মুঠোফোনটি ভেঙ্গে নষ্ট করে ও রাসেলের পকেট থেকে ২৭০০ টাকা লুট করে নিয়ে যায়। এ সময় তাঁদের চিৎকারে আশপাশের লোকজন এলে ডাকাতেরা পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন তাঁদের উদ্ধার করে চিকিৎসার ব্যবস্থা করেন।

ডাকাতির ঘটনা সম্পর্কে থানায় অবহিত করলে নড়িয়া থানার অফিসার ইনচার্জ হাফিজুর রহমান বলেন- আমি এ ব্যাপারে জরুরী ভিত্তিতে তদন্ত করে সঠিক ব্যবস্থা নিব।

আরো পড়ুন