যশোরে গত ২৪ ঘন্টায় করোনা সংক্রমিত৩০৮ জন ও মৃত্যু ১২ জন

স্বীকৃতি বিশ্বাস,
যশোরঃ

বৈশ্বিক মহামারী করোনার দ্বিতীয় ঢেউ,সুনামির মতো ছড়িয়ে পড়েছে সীমান্তবর্তী যশোর জেলার শহর থেকে প্রত্যন্ত গ্রাম পর্যন্ত।করোনার ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট অতি সংক্রমক হওয়ায় অল্প সময়ের মধ্যে অধিক লোকের ভিতর সংক্রমিত হচ্ছে।করোনার সংক্রমণে সবচেয়ে সহযোগীতা করছে লকডাউন ফাঁকি দিয়ে অসচেতনভাবে বেপারোয়া চলাফেরা।গত বছর মার্চ মাসের ৮ তারিখে বাংলাদেশে প্রথম করোনা রোগী সনাক্ত হয়।তারপূর্ব থেকে মানুষের ভিতর যে ভীতি ও সচেতনতা ছিল তা অদ্যাবধি তলানিতে গিয়ে ঠেকেছে।ফলে করোনার সংক্রমণ অতিদ্রুত গতিতে ছড়িয়ে পড়তে সহায়তা করছে।

অদ্য ২৯ জুন-২০২১ রোজ মঙ্গলবার যশোর স্বাস্থ্য বিভাগের দেওয়া তথ্যানুযায়ী গত ২৪ ঘন্টায় যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ডেডিকেটেড ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় করোনা ও করোনার উপসর্গ নিয়ে ১২ জন মৃত্যু বরণ করেছেন। এদের মধ্যে ৮ জন করোনায় ও ৪ জন করোনার উপসর্গ নিয়ে মৃত্যু বরণ করেন। বর্তমানে হাসপাতালের করোনা ডেডিকেটেড ইউনিটে ৯৯ শয্যার বিপরীতে ভর্তি আছেন ১৫৯ জন।
আর গত ২৪ ঘন্টায় ৬৪০ জনের নমুনা পরীক্ষায় করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ পরিলক্ষিত হয়েছে ৩০৮ জনের শরীরে। সংক্রমণের হার ৪৮.১২ শতাংশ।

যশোর জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক বলেন, যশোর জেনারেল হাসপাতালে করোনা রোগীর চাপ পূর্বের থেকে আশঙ্কাজনকভাবে বেড়েছে। ফলে ডাক্তার, নার্স দিয়ে চিকিৎসা দিতে সমস্যা হচ্ছে। তিনি আরও বলেন, আজ হাসপাতালে সেন্ট্রাল অক্সিজেনের মধ্যে লিকুইড অক্সিজেন ঢোকানো হচ্ছে। সেন্ট্রাল অক্সিজেন যখন লিকুইড অক্সিজেন থেকে পাওয়া যাবে তখন অক্সিজেনের সরবরাহ করতে আর সমস্যা হবে না।

আরো পড়ুন