যশোরে একদিনে সর্বাধিক ২৭ কোভিড-১৯ পজেটিভ

নিলয় ধর,যশোর প্রতিনিধি:

গত ২৪ ঘণ্টায় যশোরে নতুন করে ২৭ জনের শরীরে করোনা ভাইরাসের শনাক্ত হয়েছে। এর আগে ১ দিনে এতো বেশি সংখ্যক নমুনা পজেটিভ হয়নি। যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি)জেনোম সেন্টারের পরীক্ষণ দলের সদস্য ড. তানভীর ইসলাম বলেন, তাদের ল্যাবে আজ যশোরের ১৪২টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এর মধ্যে ২৭টি পজেটিভ রেজাল্ট দেয়। এছাড়া নড়াইলের নড়াইলের পরীক্ষা করা একমাত্র নমুনাটি ছিল পজেটিভ। ঝিনাইদহের ৪৫ টি নমুনা পরীক্ষা করে ১টির ফল পজেটিভ আসে। আর সাতক্ষীরার, ৬টি ও মাগুরার ১৬টি নমুনা পরীক্ষা করা হলে এর সবগুলোই নেগেটিভ ফল আসে। সব মিলিয়ে (যবিপ্রবি) জেনোম সেন্টারে মঙ্গলবার মোট ২১৯ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছিলো। এর মধ্যে ৩০ টি নমুনা ছিল পজেটিভ। বাদবাকি ১৮৯টি ছিল নেগেটিভ। পরীক্ষা সংক্রান্ত তথ্যাদি সংশ্লিষ্ট জেলার সিভিল সার্জন অফিসে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন,ড. তানভীর।

গত (১৭ এপ্রিল) যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ল্যাবে সন্দেহভাজন করোনা রোগীদের নমুনা পরীক্ষার কাজ শুরু হয়েছে। এই ল্যাবে যশোরসহ আশপাশের জেলার নমুনা পরীক্ষা করা হচ্ছে। আবার যশোরের নমুনাও প্রায়ই খুলনা মেডিকেল কলেজের ল্যাবে পাঠানো হয়। যবিপ্রবিতে নমুনা পরীক্ষা শুরুর পর থেকে যশোরে কখনো ১দিনে এতো বেশি সংখ্যক নমুনা পজেটিভ রেজাল্ট আসেনি। যশোরের সিভিল সার্জন ডা. শেখ আবু শাহীন বলেছেন, যবিপ্রবি থেকে আসা পজেটিভ নমুনাগুলো কোন এলাকার তা খুঁজে বের করা হচ্ছে। ইতিমধ্যে গোটা যশোর জেলাকে ৩টি ভাগে ভাগ করে বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

নতুন করে আক্রান্ত করোনা রোগীরা কোন এলাকায় পড়ছে, তা দেখে পরবর্তী সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে। গত মঙ্গলবার থেকে যশোরের ১৭টি এলাকাকে রেড জোন হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। ওই জোন লকডাউন করা হয়েছে। ইয়োলো ও গ্রিন জোনের জন্যও রয়েছে বিশেষ কিছু নির্দেশনা।

আরো পড়ুন