যশোরে আজ ১২১ জনের করোনা সনাক্ত ও মৃত্যু ৭

স্বীকৃতি বিশ্বাস
যশোরঃ

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে সমগ্র দেশ আজ স্তিমিত। সারাদেশের সাথে রাজধানী ঢাকার যোগাযোগ আজও বিচ্ছিন্ন। দেশে স্বঘোষিত নিরবতা ও নিস্তব্ধতা বিরাজ করছে। বৈশ্বিক করোনা মহামারীর অতি সংক্রমণশীল ভারতীয় ধরণ ডেল্টার আঘাতে সীমান্তবর্তী ১৩ জেলার সাথে আরও ৩৫ টি জেলার জনগণ হতবিহ্বল। প্রতিদিনই প্রত্যেক জেলায় করোনার সংক্রমণ ও মৃতের মিছিল দেখতে হচ্ছে।
করোনার সংক্রমণ হ্রাস করার জন্য স্থানীয়ভাবে কঠোর লকডাউন বাস্তবায়নের জন্য কাজ করছে প্রশাসন।সামাজিক সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য স্থানীয় ইউনিয়ন পর্যায়েও বিশেষ কমিটি গঠন করা হয়েছে।সরকারের সাথে সাথে অনেক সংস্থাও মাস্ক বিতরণ, মাস্ক ব্যবহারে উদ্ধুদ্ধসহ করোনা প্রতিরোধে কাজ করছে কিন্তু কাজ অনুযায়ী কাজের ফলাফল খুবই অসন্তোষজনক।যা সমগ্র দেশের জেলা,উপজেলা,ইউনিয়ন পর্যায়ের রিপোর্টে দেখা যাচ্ছে।
যশোর জেলায় করোনা সংক্রমণ রোধে প্রশাসনের আপ্রাণ চেষ্টা দেখা গেলেও করোনা সংক্রমণ ও মৃত্যুর মিছিল দীর্যায়িত হচ্ছে।
আজ ২৩ জুন-২০২১ রোজ বুধবার দুপুরে যশোর জেলার অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট বলেন, যশোরে গত ২৪ ঘন্টায় আরও ১২১ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং একই সময় যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ডেডিকেটেড ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় করোনা আক্রান্ত হয়ে ২ জন ও উপসর্গ নিয়ে ৫ জন মৃত্যু বরণ করেছেন।

যশোরে গত ২৪ ঘন্টায় ৩৪৩ টি নমুনা পরীক্ষা করে ১২১ জনের শরীরে করোনা ভাইরাসের অস্তিত্ব পাওয়া গিয়েছে। এ হিসাবে সংক্রমণের হার ৩৫.২৮ শতাংশ।
তিনি আরও বলেন, হাসপাতালের করোনা ডেডিকেটেড ইউনিটে ভর্তি আছেন ৮৮ জন এবং আইসোলেশনে আছেন ৫৩ জন।
উল্লেখ্য করোনা সংক্রমণ ঊর্ধ্বগতি হওয়ায় চলমান কঠোর লকডাউন আরও এক সপ্তাহ বাড়ানো হয়েছে। মোড়ে মোড়ে বসানো হয়েছে পুলিশের বিশেষ টহল।জন সমাগম রোধ, বাজার তদারকির জন্য জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে পরিচালিত মোবাইল কোর্ট।

আরো পড়ুন