ময়মনসিংহে করোনা ও উপসর্গ নিয়ে আরও ১৯ জনের মৃত্যু।

তাপস কর,ময়মনসিংহ প্রতিনিধি।

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ও উপসর্গ নিয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ১৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে পাঁচজন করোনায় এবং ১৪ জন উপসর্গ নিয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। মঙ্গলবার সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ফোকাল পার্সন ডা. মহিউদ্দিন খান মুন। তিনি বলেন, সোমবার সকাল ৮টা থেকে মঙ্গলবার সকাল ৮টা পর্যন্ত করোনা ইউনিটটিতে করোনায় মারা গেছেন- ময়মনসিংহ সদরের রহিমা খাতুন (৪৫), ফ্রান্সিলা কামা (৪৬), ফুলপুরের অজিত পন্ডিত (৭০), জামালপুর সদরের আইনুদ্দিন (৮৫) ও নেত্রকোনার শেখ ফরিদ (৩২)। এ ছাড়া ওই সময়ের মধ্যে করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা যান- ময়মনসিংহের ফুলপুর উপজেলার মনোয়ারা বেগম (৬০), ধোবাউড়ার ফাতেমা খাতুন (৭০), মুক্তাগাছার নুরুল ইসলাম (৬০), রোকনুজ্জামান (৫০), গৌরীপুরের রাবেয়া খাতুন (৫৫), নেত্রকোনা সদরের রোমেলা খাতুন (৬৫), কেন্দুয়ার মইনুল হোসেন (৬০), জামালপুর সদরের সুফিয়া বেগম (৬৮), শওকত আলী (৬৫), রমজান মিয়া (৩৫), বকশিগঞ্জের খাদিজা বেগম (৬৫), কিশোরগঞ্জের হোসেনপুর উপজেলার রফিকুল ইসলাম (৫৫), গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার রাবেয়া খাতুন (৬৪) ও টাঙ্গাইলের ধনবাড়ি উপজেলার আবদুর রশীদ (৫৫)। এ ছাড়া ওই সময়ের মধ্যে করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা যান- ময়মনসিংহের ফুলপুর উপজেলার মনোয়ারা বেগম (৬০), ধোবাউড়ার ফাতেমা খাতুন (৭০), মুক্তাগাছার নুরুল ইসলাম (৬০), রোকনুজ্জামান (৫০), গৌরীপুরের রাবেয়া খাতুন (৫৫), নেত্রকোনা সদরের রোমেলা খাতুন (৬৫), কেন্দুয়ার মইনুল হোসেন (৬০), জামালপুর সদরের সুফিয়া বেগম (৬৮), শওকত আলী (৬৫), রমজান মিয়া (৩৫), বকশিগঞ্জের খাদিজা বেগম (৬৫), কিশোরগঞ্জের হোসেনপুর উপজেলার রফিকুল ইসলাম (৫৫), গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার রাবেয়া খাতুন (৬৪) ও টাঙ্গাইলের ধনবাড়ি উপজেলার আবদুর রশীদ (৫৫)। এদিকে ময়মনসিংহ জেলায় গত ২৪ ঘণ্টায় ১ হাজার ৩০০ নমুনা পরীক্ষা করে ৩শ ৩২ জনের শরীরে করোনার উপস্থিতি পাওয়া গেছে। শনাক্তের হার ২৫ দশমিক ৫৩ শতাংশ

আরো পড়ুন