ময়মনসিংহে করোনা ও উপসর্গ নিয়ে আরও ২৩ জনের মৃত্যু।

তাপস কর,ময়মনসিংহ প্রতিনিধি।

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ও উপসর্গ নিয়ে আরও ২৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। যা সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড গড়েছে হাসপাতালটিতে। করোনায় মৃত্যুর মিছিল যেন থামছেই না। সোমবার (২৬জুলাই) সকালে পাওয়া হাসপাতালের সর্বশেষ তথ্যমতে, ময়মনসিংহ জেলা ও জেলার বাইরের মৃত ২৩ জনের মধ্যে ৯ জন করোনা আক্রান্ত হয়ে এবং ১৪ জন করোনা উপসর্গে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। গত ২৪ ঘন্টায় ময়মনসিংহ জেলায় ৩শ ৭০ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। যা আগের রেকর্ড ভঙ্গ করে নতুন রেকর্ড স্থাপন করেছে। ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মেডিসিন ইউনিটের কনসালটেন্ট ও করোনা ইউনিটের ফোকাল পার্সন ডা: মো: মহিউদ্দিন খান জানান, করোনা ইউনিটে মোট ২৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। তাদের মধ্যে করোনা পজেটিভ হয়ে মারা গেছেন- ময়মনসিংহ সদরের আলি ফতেন্নেসা (৬৮), সুক্লা (৬১), হালুয়াঘাটের মোহাম্মদ আলি (৬০), ত্রিশালের সাব্বির (৪২), মুক্তাগাছার লিয়াকত আলি (৬০), গফরগাঁওয়ের বকুলা (৮২), নেত্রকোনা সদরের হামিদা খাতুন (৫২), খালিয়াঝুড়ির শাহজাহান (৫০), গাজীপুরের শ্রীপুররের ফয়েজ বানু (৮০)।
এছাড়া করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন-ময়মনসিংহ সদরের মো. সাইফুজ্জামান (৬৪), ফিরোজা খাতুন (৬৫), ইসমাইল (৩৫) ও আব্দুস সিদ্দিক (৬৪), নান্দাইলের রমেসা (৭৮), ত্রিশালের আঞ্জুমান (৭০), ভালুকার তাজুদ্দিন (৪৫), গফরগাঁওয়ের আব্দুস রাজ্জাক (৮০), ফুলপুরের আব্দুল সেলিম (৫০), নেত্রকোনা সদরের পাপিয়া (৩৫), পূর্বধলার আব্দুর রশিদ (৮৫), টাংগাইল সদরের বিনয় কিশ পোদ্দার (৬২) ও মধুপুরের খলিল (৮৫) এবং গাজীপুর শ্রীপুরের নুরুল ইসলাম (৬০)। ডা: মো: মহিউদ্দিন খান আরও জানান, হাসপাতালে করোনা ইউনিটে মোট রোগী ভর্তি আছেন ৪শ ৫৬ জন, আইসিইউতে ভর্তি আছেন ১৯জনএদিকে রবিবার দিবাগত রাতে সিভিল সার্জন অফিস সূত্রে জানা যায়, গত ২৪ ঘন্টায় র‌্যাপিড এন্টিজেন ও আরটিপিসিআর টেস্টে মোট পজেটিভ হয়েছেন ৩শ ৭০ জন। যাদের মধ্যে র‌্যাপিড এন্টিজেন টেস্টে ২শ ৫৫ জন ও আরটিপিসিআর টেস্টে ১শ ১৫জন রয়েছেন।এদিকে জেলার সর্বশেষ করোনা টেস্টের প্রতিবেদন অনুযায়ী জানা যায়, ময়মনসিংহ সদরে ১শ ৮০জন, নান্দাইলে ১৪জন, ঈশ্বরগঞ্জে ৫জন, গৌরীপুরে ২২জন, ফুলপুরে ৩২জন, তারাকান্দায় ৫জন, হালুয়াঘাটে ৩জন, মুক্তাগাছায় ৩৪জন, ফুলবাড়িয়ায় ১৩ জন, ত্রিশালে ২৪জন, ভালুকায় ২০জন ও গফরগাঁওয়ে ১৮জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

আরো পড়ুন