মহাশ্বেতা দেবী স্মরণ সম্মাননা পেলেন, কিঙ্কর আহসান

বিশেষ প্রতিনিধি: এই সময়ের জনপ্রিয় তরুণ কথাসাহিত্যিক কিঙ্কর আহসান পেলেন “মহাশ্বেতা দেবী স্মরণ সম্মাননা”। পাশের দেশ ভারতের বঙ্গ সংস্কৃতি মঞ্চ এ সম্মাননা প্রদান করেছে। 

গতকাল(৩০ অক্টোবর) বুধবার ভারতের পশ্চিম বঙ্গে এক জমকালো আয়োজনে তাকে এই সম্মাননা প্রদান করা হয়।

সম্মাননা প্রদান অনু্ষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বঙ্কিম ও আনন্দ পুরষ্কারপ্রাপ্ত নলিনী বের, বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচায্য মহোদয় অধ্যাপক ড. সজিত কুমার বসু, আই সি সি আর এর অধিকর্তা গৌতম দে, কোলকাতা দূরদর্শনের অনুষ্ঠান অধিকর্তা অরুনাভ রায়, টেকনো ইন্ডিয়ার ডাইরেক্টর সত্যম রায়চেীধুরী, বাংলাদেশ দূতাবাসের এইচ ও সি বি. এম. জামাল হোসেন, বিশিষ্ট সঙ্গীত শিল্পী সৈকত মিত্র, বিশিষ্ট সাংবাদিক শঙ্করলাল ভট্টাচার্য্ এবং বুকসেলার্স এন্ড গিল্ড এর সম্পাদক সূধাংশু দে। অনুষ্ঠানটির সভাপতিত্ব করেছেন কোলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি ব্যারিষ্টার নূরে আলম চেীধুরী। সঞ্চালনা করেছেন মধুমিতা বসু বিশাখা রুদ্র।

তরুণ লেখক হিসেবে দুই বাংলায় সমান জনপ্রিয় কিঙ্কর আহসান ছাত্রাবস্থায় দেশের জনপ্রিয় একটি দৈনিক পত্রিকায় লেখালেখি শুরু করেন। এরপর টানা পাঁচ বছর বাংলানিউজ, বাংলাদেশ প্রতিদিন, কালের কণ্ঠ, পরিবর্তনসহ দেশের প্রায় সব শীর্ষ দৈনিক পত্রিকা ও অনলাইন পোর্টালে ছোটগল্প লিখেছেন যা দারুণ জনপ্রিয়তা এনে দেয় তাকে। তার সর্ম্পকে এক কথায় বলতে গেলে তার বুবুর কাছ থেকে শোনা কথাটাই বলতে হবে, ‘মাটির মানুষ ছেলেটা তবুও আকাশে ডানা মেলে ওড়ার আজন্ম সাধ তার।’ সদালাপি লেখকের মুখে একটিই কথা খুব বেশি শোনা যায় পৃথিবী বইয়ের হোক। লেখালেখির পাশাপাশি বর্তমান সময়ের তরুণদের বইমূখী করতে নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন এই লেখক। বর্তমানে উপদেষ্টা হিসেবে আছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাহিত্য সংসদ, হিমু পরিবহন সহ অনেক সংগঠণের। পৃষ্ঠপোষকতায় আছেন সাহিত্য সংগঠণ খিলগাঁও পাঠক পরিবারের।

দীর্ঘদিন ডকুমেন্টারি নির্মাণসহ আরও নানান কাজ করেছেন । চ্যানেল আইয়ের ‘আই পজিটিভ কমিউনিকেশন’-এ অ্যাসোসিয়েট গ্রুপ হেড হিসেবে কর্মরত ছিলেন দুই বছর। বর্তমানে কাজ করছেন ‘এশিায়াটিক কমিউনিকেশনে’ নামে একটি বিজ্ঞাপনী সংস্থায়। সবকিছুর পরেও লেখালেখিই কিঙ্কর আহ্সানের আসল জায়গা। অমর একুশে গন্থ মেলা ২০২০ এ আসছে লেখকের নতুন উপন্যাস “মেঘডুবি”।

এ পর্যন্ত এগারোটি বই লিখেছেন তিনি। বইমেলায় প্রকাশিত তার পাঠকপ্রিয় বইগুলো হলো-, কাঠের শরীর (গল্পগ্রন্থ), রঙিলা কিতাব (উপন্যাস), স্বর্ণভূমি (গল্পগ্রন্থ), মকবরা (উপন্যাস) ও আলাদিন জিন্দাবাদ (গল্পগ্রন্থ), আঙ্গারধানি (উপন্যাস), কিসসা পূরণ (গল্পগ্রন্থ), রাজতন্ত্র (উপন্যাস), মখমলি মাফলার (উপন্যাস), মধ্যবিত্ত (উপন্যাস), বিবিয়ানা (উপন্যাস)।

গত কয়েক বছর ধরে বইমেলায় পাঠক প্রিয়তা তাকে দারুণ জনপ্রিয় তাকে এনে দিয়েছে।

আরো পড়ুন