মরণব্যাধি ক্যানসার থেকে বাঁচতে চায় অসহায় ফজলু

কামরুজ্জামান শাহীন:
বাঁচতে চায় অসহায় ফজলু। বাড়ি ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলার হাসান নগর গ্রামে। গত দুই বছর আগে পাইলস ও অর্শরোগের অপারেশন করতে গিয়ে ধরা পড়ে মরণব্যাধি ক্যান্সার। বর্তমানে সে বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
ফজলুর স্ত্রী লাইজু বেগম একটি গার্মেন্টসে ও বারো বছর বয়সী ছেলে একটি চায়ের দোকানে চাকুরী করে এবং একমাত্র সম্বল ঘরভিটা বন্ধক রেখে ঔষধ কিনা সহ দুটি থেরাপি দিয়েছেন। এখনো চারটি থেরাপি বাকি রয়েছে। এতিমধ্যে টাকার জন্য দুটি থেরাপি দিতে পারেননি সময় চলে গেছে। অন্যদিকে প্রতিদিনের ঔষধ ও সংসার খরচ!। এ যেনো তাঁর মাথার উপর দাঁড়িয়ে আছে বিশাল এক পাহাড়।
ফজলুর স্ত্রী লাইজু বেগম জানান, স্বামীর এমন অবস্থায় আমি ও আমার বারো বছর বয়সের ছেলেটি চট্টগ্রামে চাকরি করেছি। লকডাউনের কারণে আমরা চাকরি হারাই। আর ছেলের বয়সও কম হওয়ায় কেউ কাজে নিতে চায় না। বর্তমানে আসেপাশের লোকজন কিছু দিলে খাই না দিলে উপবাস থাকা ছাড়া করার কিছু নাই। এখন স্বামী ও সন্তানদের দিকে তাকিয়ে রাস্তায় ভিক্ষা করা ছাড়া যেনো আর কিছুই দেখছি না আমি। দয়া করে আপনারা আমাদের এ অসহায় পরিবারের দিকে তাকিয়ে আল্লাহর ওয়াস্তে সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিন।
তিনি তার স্বামীর চিকিৎসার খরচের জন্য বিত্তবান ও হৃদয়বানদের কাছে সাহায্যের আবেদন জানিয়েছেন। সহায়তার জন্য কল করে নিশ্চিত হোন ফজলু ০১৭৮৫-৩৩৬ ৩০০ (বিকাশ পার্সোনাল)।
কামরুজ্জামান শাহীন
০১৭১২-৯৬০৭৩৪

আরো পড়ুন