ভোলায় সিভিল সার্জনের দায়িত্বহীনতায়, আতঙ্কিত এলাকাবাসী

নিজস্ব প্রতিনিধি

ভোলায় দায়িত্বহীন আচরণ করছেন স্বস্থ্য বিভাগ। ইতালি থেকে আসা দু’জনকে হোম কোয়ারেন্টইনের নামে তাদের নিজ বাড়িতে ছেড়ে রেখেছেন জেলার স্বাস্থ্য বিভাগ। এতে আতংকিত হয়ে পরেছেন এলাকাবাসি। তাদের মধ্যে একজনকে ১৩ মার্চ শুক্রবার ও আরেকজনকে ১৪ মার্চ শনিবার রাতে কোয়ারেন্টাইনে রাখার কথা বলে নেয়া হলেও কোন কারণে তাদের নিজ বাড়িতে পাঠানো হলো তার কোন ভালো উত্তর পাওয়া যায়নি স্বাস্থ্য বিভাগের কর্তা ব্যাক্তিদের কাছে।

তাদের নাম পরিচয় গোপন রাখা হলেও তাদের দু’জনের বাড়ি ভোলা শহরের ওয়েষ্টর্ন পাড়ায় বলে নিশ্চিৎ করেছেন নির্ভর যোগ্য সূত্র।

ভোলা স্বাস্থ্য বিভাগ জনসাধারণকে এ নিয়ে আতঙ্কিত না হওয়ার জন্য অনুরোধ করলেও তাদের মধ্যে সবাই চরম আতংকে দিনাতিপাত করছেন।

সিভিল সার্জন ডা. রতন কুমার ঢালী জানান, ওই দুজন গত কয়েক দিন আগে ইতালি থেকে ভোলা শহরে এসেছেন। আমরা খোঁজ-খবর নিয়ে স্বাস্থ্য পরীক্ষা করলে তাদের শরীরে করোনাভাইরাসের কোনো উপসর্গ পাওয়া যায়নি। তবে সর্তকতামূলক ব্যবস্থার জন্য তাদেরকে নিজ বাড়িতে রেখে বিশেষ পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। এদের মধ্যে একজনকে শুক্রবার ও অন্যজনকে শনিবার রাতে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।

সিভিল সার্জন ভোলা স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে কঠোর সর্তক ব্যবস্থা গ্রহ ও বিদেশ ফেরত কেউ ভোলায় আসলে খোঁজ-খবর নিয়ে তাদের স্বাস্থ্য পরীক্ষার কথা বলা হলেো বাস্তবে এমন কোন কিছুই দেখা যায়নি ভোলার স্বাস্থবিভাগে।

ভোলার স্বাস্থবিভাগ দ্রুত কার্যকরী ব্যাবস্থা গ্রহন করার দাবী জানিয়েছেন আতংকিত মানুষ।

আরো পড়ুন