বিএনপির মিছিলে পুলিশের হামলা রিজভী ও জুয়েল সহ আহত ১০

নিজস্ব প্রতিনিধি

কারাবন্দী বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে রাজধানীর মিরপুরে বিক্ষোভ মিছিল বের করে বিএনপি ও বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা। তবে পুলিশের অতর্কিত হামলা ও লাঠিচার্জে মিছিলের নেতৃত্বে থাকা বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীসহ আট থেকে দশজন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে বিএনপি।

আজ শনিবার সকাল ১১টার দিকে মিরপুর ৬ নম্বর থেকে বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করে বিএনপি ও এর অঙ্গসংগঠনের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা। মিছিলে নেতৃত্ব দেন রুহুল কবির রিজভী।

এ সময় বিএনপির ক্রীড়া সম্পাদক আমিনুল হক, জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের সহ সভাপতি কাওসার আহমেদ, সাংগঠনিক সম্পাদক সাইফ মাহমুদ জুয়েল, ঢাকা কলেজ ছাত্রদলের সাইফুল ইসলাম তুহিন সহ স্থানীয় ছাত্রদল, যুবদল, স্বেচ্ছাসেবক দল ও অঙ্গ সংগঠনের নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

মিছিলে নেতৃত্বে থাকা রুহুল কবির রিজভী জানান, মিরপুর ৬ নম্বর থেকে শুরু হয়ে মিছিলটি মেইন রোডের দিকে অগ্রসর হতে থাকলে পুলিশ অতর্কিতভাবে তাদের ওপর হামলা ও লাঠিচার্জ করে। ফলে মিছিলটি ছত্রভঙ্গ হয়ে যায়।
এতে রিজভী নিজে এবং ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক জুয়েল সহ ছাত্রদল-যুবদলের বেশ কয়েকজন নেতাকর্মী আহত হন। বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবিতে একটি শান্তিপূর্ণ মিছিলে পুলিশের এমন হামলার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করেন রিজভী।
তিনি বলেন, হামলা মামলা দিয়ে বিএনপির গণতান্ত্রিক আন্দোলন দমানো যাবে না। দেশের মানুষ বর্তমান অবৈধ সরকারের নিপীড়নে অতিষ্ঠ। যেকোনো সময় জনবিস্ফোরণ ঘটবে।

সেসময় ক্ষমতাসীন অবৈধ আওয়ামী ফ্যাসিস্ট সরকার ক্ষমতা ছেড়ে পালাতে বাধ্য হবে। সেদিন আর বেশি দূরে নয়। ইনশাআল্লাহ জনগণের আন্দোলনে বেগম খালেদা জিয়া মুক্ত হবেন। আর তখন দেশের হারানো গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার হবে দেশের মানুষ মুক্তি ও নিরাপত্তা পাবেন ইনশাআল্লাহ।

আরো পড়ুন