ফেসবুকে সাংবাদিক ‘নিলয় ধর’ এর বিরুদ্ধে ভিত্তিহীন অপপ্রচার

মণিরামপুর(যশোর) প্রতিনিধি:-   এখন প্রায় সবাই বলছেন যে ফেসবুক গুজবের একটি বড় জায়গায় পরিণত হয়েছে৷ আর সত্য ঘটনার চেয়ে গুজবই যেন ফেসবুকে ভাইরাল হয় বেশি৷ এই গুজবকে কেন্দ্র করে বাংলাদেশে অনেক অঘটনও ঘটছে৷ যশোর মণিরামপুরে উপজেলার সুজাতপুরের বাবু হীরামন বিশ্বাস ফেসবুকে একটা ‘৯৬ গ্রাম ‘গ্রুপ পেজের এডমিন। তিনি খুলনা ডিসি অফিসে চাকরি করেন।তার এই পেজে এ (২৪ ডিসেম্বর) সাংবাদিক নিলয় ধর  একটা নিউজ লিঙ্ক সেয়ার করেন। 
 
নিউজটি মণিরামপুরে সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান’ লক্ষণ চন্দ্র ধর’ আর নেই। এটা নিয়ে কমেন্টে তর্ক হয় ‘শ্যামলী দত্তের’ সাথে ,  তার তর্কের কারনে সাংবাদিক নিলয় ধর লিঙ্কটি ডিলেট করে দেন।

 

তারপরে তাকে বার্তা পাঠিয়ে বোঝান যে  মণিরামপুরে সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান’ লক্ষণ চন্দ্র ধর’ আর নেই।জাতীয় পত্রিকায় সারা বাংলাদেশে যায়, শুধু যশোরের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকে না, কুলটিয়া ইউনিয়ন বললে সারা বাংলাদেশে সবাই চিনবে?? তাই হেডলাইনে সংক্ষিপ্ত ভাবে এমনই লিখতে হয়। সবকিছু জানতে হলে লিঙ্কের ভিতরে গিয়ে পড়তে হয়। তাকে বোঝানো হয়েছে বলে বিনা প্রমাণে হুমকি মূলক কথা বলা হয়েছে বলে,কিছু লেখা পোস্ট করছেন ফেসবুকে।তার এই পোস্টে অনেকে প্রমাণ হিসেবে অনেকে স্কিনশট চেয়েছেন সহ সাংবাদিক নিলয় ধর তার ম্যাসেঞ্জারে হুমকি দেওয়ার স্কিনশট চেয়েছেন। তার কেনো উত্তর আসছে না পোস্টের কমেন্টে এবং ম্যাসেঞ্জারেও।

এ ছাড়াও এই নিয়ে ফেসবুকে প্রমাণ সরূপ হুমকির স্কিনশট  না দিয়ে শুধু কিছু লেখার মাধ্যমে অপপ্রচার চালাচ্ছেন শ্যামলী দত্ত। তিনি ফেসবুকে তার পরিচয় না দিয়ে তিনি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অপপ্রচার চালাচ্ছেন । তাকে যদি হুমকি দেওয়া হয়ে থাকে। তিনি এমন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অপপ্রচার না করে আইনগত ব্যাবস্থা নিতে পারতেন!
 
 
জানতে চাইলে সাংবাদিক, নিলয় ধর, জানান, এমন অপপ্রচারের জন্য সাইবার ক্রাইম এ মামলা করার জন্য ব্যাবস্থা নেওয়া হচ্ছে। 
 
আরো পড়ুন