নিম্ম আয়ের শিল্পীদের পাশে শিল্পী সমিতি

বিনোদন প্রতিবেদক

বিশ্বব্যাপী প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস এখন শুধু আতঙ্কের মধ্যেই সীমাবদ্ধ নেই ছড়িয়ে পরেছে ব্যাপকহারে। জ্যামিতিক সংখ্যায় ছড়াচ্ছে মানুষ থেকে মানুষে, দেশ থেকে দেশে। করোনা ভাইরাসকে দমন করতে হলে ঘরে থাকার বিকল্প নেই। তবে ঘরে থাকা সহজ কাজ নয়। তবুও নিজে ভালো থাকতে ও অন্যকে ভালো রাখতে নিজের ইচ্ছের বিরুদ্ধে গিয়ে সবাইকে ঘরে লকড করে রাখতে হচ্ছে। মহামারি করোনার থাবা লেগেছে ঢাকাই চলচ্চিত্রেও। করোনার কারনে বিপাকে পড়েছেন চলচ্চিত্রর নিম্ন আয়ের শিল্পী ও অন্যান্য কলাকুশলী। এর আগে ছয় দফায় শিল্পী ও অন্যান্য সংগঠনকে আর্থিক সহায়তা ও নিত্যপ্রয়োজনীয় খাবার সামগ্রী দিয়ে সহযোগিতা করেছেন চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতি।

আসন্ন পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে আর্থিক সহযোগিতা পাবেন নিম্ন আয়ের শিল্পীরা, এমনটি জানিয়ে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান। শিল্পী সমিতির কল্যাণে ঘরে বসেই তিনবেলা খাবার পাচ্ছেন অসহায় শিল্পীরা। সমিতি ঘোষণা দিয়েছে ‘যত দিন করোনা, তত দিন ঘরে বসেই খাবার পাবে শিল্পীরা।’ এরই মধ্যে প্রয়াত শিল্পীদের পাশে দাঁড়িয়েছে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতি। তাঁদের ঘরে পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রী।

সমিতির সভাপতি মিশা সওদাগর বলেন, ‘আমরা করোনার প্রভাব শুরু হওয়ার পর থেকেই চেষ্টা করে যাচ্ছি, যেন আশপাশের মানুষ ভালো থাকেন। আপনাদের বলব, আপনারাও পাশের মানুষটির খবর নিন। ইনশাআল্লাহ কেউ খারাপ থাকবে না।’

সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান বলেন, ‘আমরা চেষ্টা করে যাচ্ছি কোনো শিল্পীকে যেন খিদের জ্বালা সহ্য করতে না হয়। সামনেই ঈদ সবাই চায় সুন্দর করে ঈদটি পালন করতে। তাই আমরা সমিতির পক্ষ থেকে নিম্ন আয়ের শিল্পীদের জন্য অর্থিক সহযোগিতার ব্যবস্থা করছি।

প্রতিবছরই নিম্ন আয়ের শিল্পীদের এই সহযোগিতা দেওয়া হয়। তবে এবার করোনার কারণে তা চার থেকে পাঁচ গুণ বেশি শিল্পীকে দিতে হবে। করোনার কারনে আমরা হাসতে ভুলে গেছি। তবুও আমরা নিম্ন আয়ের শিল্পীদের মুখে হাঁসি ফোঁটাতে চেষ্টা করবো।’

আরো পড়ুন