নওয়াপাড়ায় মুদি দোকানীর ঝুলন্ত্ম মরদেহ উদ্ধার

অভয়নগর (যশোর) প্রতিনিধি-
যশোর জেলার অভয়নগর উপজেলার নওয়াপাড়ায় মোল্যা ইব্রাহিম আসাদ (৬০) নামের এক মুদি দোকানীর রহস্যজনক মৃতু্য হয়েছে। রবিবার (২৩ মে) সকালে পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ডের গুয়াখোলা গ্রামের প্রফেসার পাড়ায় নিজ বাড়ির জানালার গ্রীলের সাথে গলায় ফাঁস দেওয়া অবস্থায় থাকা তার মরদেহ উদ্ধার করে অভয়নগর থানা পুলিশ। পুলিশ লাশটির ময়না তদন্ত্মের যশোর জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে।
নিহত ইব্রাহীমের বড় মেয়ে পাপিয়া খাতুন জানান, রবিবার সকালে ঘুম থেকে উঠে বাড়ির স্টোর রম্নম খোলা দেখতে পান। ভেতরে গিয়ে জানালার গ্রীলের সঙ্গে গলায় ফাঁস দেওয়া অবস্থায় বাবার মরাদেহ ঝুলে থাকতে দেখে তিনি থানা পুলিশে খবর দেন। তবে মৃতু্যর কারণ সম্পর্কে তিনি কিছুই জানাতে পারেননি।
নিহত ইব্রাহীমের জামাতা রকিবুল ইসলাম খান জানান, তাঁর শশুরের দুই স্ত্রী ছিল। সব সময় মানসিক চাপে থাকতেন তিনি। নওয়াপাড়া বাজারে জনতা স্টোর নামে মুদি দোকান ছিলো তার। ঐ দোকানের অর্থনৈতিক অবস্থাও ভালো ছিল না। যার জন্যে দুই সংসার চালাতে গিয়ে মানসিক চাপে পড়ে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করতে পারেন তিনি ?
নিহতের দ্বিতীয় স্ত্রী রাবেয়া খাতুন জানান, শনিবার রাতের খাবার শেষে তাঁর স্বামী প্রফেসার পাড়ায় প্রথম স্ত্রীর বাড়িতে চলে যান। প্রথম স্ত্রী একজন মানসিক রোগী ছিলেন। সেখানে মৃতু্যর ঘটনা ঘটেছে। মানসিক রোগী হওয়ায় নিহতের প্রথম স্ত্রীর সাথে কথা বলা সম্ভব হয়নি।
জানতে চাইলে অভয়নগর থানার ওসি মেঃ মনিরম্নজ্জামান জানান, মোল্যা ইব্রাহিম আসাদ নামে নওয়াপাড়া বাজারের একজন ব্যবসায়ীর গলায় ফাঁস দেওয়া অবস্থায় তার মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ময়না তদন্ত্মের জন্য লাশ যশোর মর্গে পাঠানো হয়েছে। তদন্ত্ম চলছে। ময়না তদন্ত্মের পর বলা যাবে হত্যা নাকি আত্মহত্যা।

আরো পড়ুন