ঝিকরগাছা পল্লীতে পরকীয়ার জেরে গৃহবধু ৪ মাসের অন্ত্বসত্বা, দেড় লক্ষ টাকায় রফাদফা

শার্শা প্রতিনিধিঃ যশোরের ঝিকরগাছার পল্লীতে দেড় লক্ষ টাকা জরিমানা করে গ্রাম্য সালিশে অবৈধ মেলমেশার পর ৪ মাসের অন্ত্বাসত্বা এক গৃহবধুর বিচার নিষ্পত্তি করা হয়েছে। গত ২৬শে জুন ঝিকরগাছা শংকরপুর ইউনিয়নের নায়ড়া সেকেন্দারকাঠি গ্রামে এ সালিশ অনুষ্ঠিত হয় তবে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত জরিমানার টাকা হাতে পাননি ওই গৃহবধূ বা তার স্বামী।

জানা যায়, দীর্ঘদিন যাবৎ ঝিকরগাছা নায়ড়া সেকেন্দারকাঠি গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে মিঠু পাশের বাড়ীর এক ভাবীর সাথে পরকীয়ার জড়িয়ে পড়ে।এক পর্যায়ে তারা অবৈধ মেলামেশায় লিপ্ত হয়।যার ফলে ওই গৃহবধু ৪ মাসের অন্ত্বাসত্বা হয়ে পড়ে। এ ঘটনা জানাজানি হলে ২৬ ই জুন ঝিকরগাছা সেকেন্দারকাঠি গ্রামে সালিশ বসে। সেখানে ইউপি মেম্বার হাসমত, সাবেক ইউপি সদস্য ইজানুর রহমান,আরাফাত রহমান ও কাশেম খাঁ সহ গ্রাম্য প্রধানরা উপস্থিত ছিলেন। পরে মিঠুকে দেড় লক্ষ টাকা জরিমানা করে সালিশ শেষ করা হয়।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত মিঠুর কাছে জানতে চাইলে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন,আমি অপরাধ করেছি। এজন্য আর কোন ঝামেলায় জড়াতে চাইনা। তাই বিষয়টি দেড় লক্ষ টাকার বিনিময়ে মিটিয়ে নিয়েছি।

এ ব্যাপারে ঝিকরগাছা থানার তদন্ত কর্মকর্তা মেজবাহ আহম্মেদের কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান, এ বিষয়ে কোন অভিযোগ পাইনি।অভিযোগ পেলে তদন্ত পুর্বক আইনগত ব্যাবস্হা নেওয়া হব।

আরো পড়ুন