চরফ্যাশনে ইলিয়াস গংদের হামলায় আহত আলমগীরের চিকিৎসায় বাধা

চরফ্যাশন উপজেলা প্রতিনিধি৷৷

ভোলার চরফ্যাশন উপজেলা ওমরপুর ইউনিয়ন ৬নং ওয়ার্ড (সাবেক আছলামপুর) মুজিব নগর বাজার এলাকায় মোঃ ইলিয়াস অবৈধ ভাবে জমি দখল করে দোকান নির্মান কাজে বাধা দেয়ায় মোঃ আলমগীর সহ ৫ জনকে পিটিয়ে আহত করেছে৷ ইলিয়াস এর ভায়রাভাই চরফ্যাশন হাসপাতালে কর্মরত চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী মোঃ হোসেন ও তার স্ত্রী জোসনা বেগম ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে গুরুতর আহত আলমগীর কে চরফ্যাশন হাসপাতালে চিকিৎসা ও ভর্তি হতে দেয়নি৷ এমনই অভিযোগ করেছেন আহত মোঃ আলমগীর৷ বৃহস্পতিবার (২০ মে) রাত ১১টার সময় এই ঘটনা ঘটেছে৷

জানা যায়, মৃত আব্দুল মান্নান এর ৪ ছেলে তৈয়ব আলী, রফিক, সোলায়মান ও অভিযুক্ত ইলিয়াস ওয়ারিশ সুত্রে মুজিব নগর বাজারে প্রায় ২৭ শতাংশ জমির মালিক৷ পেশী শক্তির বলে মোঃ ইলিয়াস বাকি তিন ভাইকে কোন জমি না দিয়ে একাই পাকা দোকান নির্মানে কাজ শুরু করেন৷ এমন জবরদখল দেখে তিন ভাই ও ভাতিজা মিলে দোকান নির্মাণ কাজে বাধা দিতে গেলে ইলিয়াসের স্ত্রী বিউটি, মেয়ে পারভীন, ছেলে আরিফ লাঠিসোটা নিয়ে এলোপাতাড়ি হামলা চালায়৷ পরে এলাকাবাসীর সহযোগিতায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে৷ এই হামলায় আলমগীর, কবির, মনজু,আব্বাস, হাসনাইন আহত হন৷ এদের মধ্যে আলমগীর গুরুতর আহত হয়েছেন৷ কাউকেই চরফ্যাশন হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে দেয়নি অভিযুক্তদের আত্মীয় মোঃ হোসেন ও তার স্ত্রী জোসনা বেগম৷ তারা হাসপাতালে চাকরি করার সুবাদে চিকিৎসায় বাধা সৃষ্টি করে উল্টো পুনরায় হামলা করার পরিকল্পনা করেছে বলেও জানান আহত আলমগীর৷ তিনি আরও বলেন হামলার পরিকল্পনা বুঝতে পেরে তারা দ্রুত সময়ে হাসপাতাল ত্যাগ করেন৷ আলমগীর উক্ত ঘটনায় চরফ্যাশন থানায় অভিযোগ করবেন বলে জানান৷

অভিযুক্ত ইলিয়াস ও মোঃ হোসেন আহতদের চিকিৎসায় বাধা দেয়ার কথা অস্বীকার করে স্থানীয় সালিশের মাধ্যমে ঘটনার ফয়সালা করার প্রস্তাব দেন৷

আরো পড়ুন