গত ২৪ ঘন্টায় খুলনার ২ হাসপাতালে মৃত্যু ১১ ও সনাক্ত ১৮৪

স্বীকৃতি বিশ্বাসঃ

বৈশ্বিক মহামারী করোনার দ্বিতীয় ঢেউ বাংলাদেশের প্রায় প্রতিটি জেলার উপর দিয়ে বয়ে চলেছে। ৫৯ টি জেলায় কম বেশি করোনা পজেটিভ রোগী পাওয়া গিয়েছে এবং করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু বরণও করেছেন। করোনার সুপার পাওয়ার ঢাকা থেকে বিস্তৃত হয়ে সীমান্তবর্তী ১৩ জেলার উপর দিয়ে অপ্রতিরোধ্য গতিতে বয়ে চলেছে। বিশেষ করে রাজশাহী ও খুলনা বিভাগে করোনা সংক্রমণের বিস্তার ও মৃত্যু নিভৃত পল্লীতে পৌঁছে গেছে।

২৮ জুন-২০২১ রোজ সোমবার খুলনার করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালের ফোকাল পার্সন ও গাজী মেডিকেল কলেজের সত্ত্বাধিকারীর দেওয়া তথ্যানুযায়ী খুলনায় গত ২৪ ঘন্টায় তিনটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন করোনা রোগী ও করোনার লক্ষণ যুক্ত ১১ জন রোগীর মৃত্যু হয়েছে। এরমধ্যে ৬ জনের মৃত্যু হয়েছে খুলনা মেডিকেল কলেজে হাসপাতালের করোনা ডেডিকেটেড ইউনিটে এবং অপর ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে বেসরকারি গাজী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে।

খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ১৩০ শয্যার করোনা ইউনিটে ১৬৯ জন চিকিৎসাধীন আছেন। এর মধ্যে রেডজোনে ৯৯ জন, ইয়ালোজোনে ২৫ জন, আইসিইউতে ১৯ জন এবং এইচডিইউতে ২০ জন।

গাজী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ৯৮ জন রোগী চিকিৎসাধীন ছিলেন। গত ২৪ ঘন্টায় নতুন ২৬ জন ভর্তি হয়েছেন। এ হাসপাতালে আইসিইউতে ভর্তি আছেন ৪ জন এবং এইচডিইউতে ৯ জন।

খুলনা জেনারেল হাসপাতালের করোনা ইউনিটের মুখপাত্র জানান, গত ২৪ ঘন্টায় এ হাসপাতালে কোন রোগীর মৃত্যু হয়নি।চিকিৎসাধীন ৬৭ জনের মধ্যে পুরুষ ৩৩ জন ও মহিলা ৩৪ জন।আর নতুন ভর্তি হয়েছেন ৯ জন।

খুলনা মেডিকেল কলেজের পিসিআর মেশিনে গত ২৪ ঘন্টায় ৪৬৪ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১৮৪ জনের শরীরে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ পরিলক্ষিত হয়েছে। পরীক্ষার ফলাফল বিশ্লষণে দেখা যায় সনাক্তের হার ৩৯.৬৫ শতাংশ। এর মধ্যে খুলনা জেলার ৩৩০ টি নমুনায় ১৩২ জনের শরীরে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ পরিলক্ষিত হয়েছে। ফলে শুধু খুলনা জেলায় সংক্রমণের হার ৪০ শতাংশ।

আরো পড়ুন