খুলনার অলোচিত রকিবুল হত্যা মামলায় সন্দেহভাজন ৪ আসামির আদালতের রিমান্ড মঞ্জুর

অভয়নগর (যশোর) প্রতিনিধিঃ
যশোরের অভয়নগর উপজেলার দত্তগাতী গ্রামের খুলনার আলোচিত রকিবুল হত্যা মামলার সন্দেহভাজন চার আসামীর রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত। আসামীগণকে গ্রেফতারের পর মামলার তদন্ত কর্মকতা ৭ দিনের রিমান্ড চাইলে বিজ্ঞ আদালত বৃহস্পতিবার (১৯ মে) দুপুরে রিমান্ড শুনানি শেষে ৪নং পায়রা ইউনিয়ন পরিষদের ৮নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য মিলন হালদার (৫২)
, ৯নং ওয়ার্ডের সাবেক ইউপি সদস্য সাইফুল ইসলাম (৪০) কে দুই দিন এবং সুব্রত মন্ডল (৫২) ও পিযুষ মন্ডল (২৭) এর এক দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন। তবে আদালত সন্দেহভাজন অপর আসামী তুহিন হালদার (৩৪) এর রিমান্ড মঞ্জুর করে নাই।
জানা গেছে, ১২ মে (বৃহস্পতিবার) দিবাগত রাত ৮ টায় রকিবুল ও তার স্ত্রী বর্ষা মটরসাইকেলযোগে দত্তগাতী থেকে নিজ বাড়ি ফুলতলার উদ্দেশ্য রওনা হলে পথিমধ্যে দত্তগাতী প্রথমিক বিদ্যালয়ের সামনে পৌছালে দূর্বত্তেরা তাদের প্রতিহত করে গুলি ছোরে। দূর্বত্তের ছোরা গুলিতে নিহত হন অভয়নগর ও ফুলতলা এলাকার চরমপন্থী রকিবুল ইসলাম। আহত হয় তার স্ত্রী বর্ষা। এ ঘটনায় নিহতের মা রহিমা বেগম বাদি হয়ে ১৩ মে রাতে অজ্ঞাতনামা আসামি করে অভয়নগর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। পুলিশ হত্যায় জড়িত
সন্দেহে বর্তমান মেম্বর মিলন হালদার, সাবেক মেম্বর সাইফুল ইসলাম সহ সুব্রত মন্ডল, পিযুষ মন্ডল ও তুহিন হালদার কে আটক করে।
পুলিশ সূত্রে জানা যায়, নিহত রকিবুলের বিরুদ্ধে অভয়নগর ও ফুলতলা থানায় হত্যা, অস্ত্রসহ একাধিক মামলা রয়েছে। সে অভয়নগর উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা মোল্যা ওলিয়ার রহমান হত্যা মামলার মাষ্টার মাইন্ড হিসাবে চিহ্নিত।
অভয়নগর থানার ওসি-তদন্ত মিলন কুমার মন্ডল আসামীদের রিমান্ডের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, মামলাটি এখনো তদন্তাধীন। হত্যার বিষয়ে এখনই বিস্তারিত কিছু বলা যাচ্ছেনা তদন্ত চলছে তদন্ত শেষ হলেই সবটা পরিস্কার হবে।

আরো পড়ুন