কথার-কাটাকাটির আক্রোশে ছুরিকাঘাতে যুবক খুন।

তাপস কর,ময়মনসিংহ প্রতিনিধি।

কথার-কাটাকাটিতে ছুরিকাঘাতে মো. বাবু (২৩) নামের এক ইজিবাইকচালক যুবক খুন হয়েছেন। এ সময় এখলাছ মিয়া (২৬) নামের আরও এক যুবক আহত হয়।
গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে ঘটনাটি ঘঠেছে ময়মনসিংহ বিভাগের নেত্রকোনার কেন্দুয়ার সান্দিকোনা ইউনিয়নের সাহিতপুর বাজারে অটোস্ট্যান্ডে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় জড়িত অভিযোগে সুমন মিয়া (২৮) নামের একজনকে আটক করেছে কেন্দুয়া থানা পুলিশ। ইমরান হাসান সাহিতপুর বাজার এলাকাসংলগ্ন চেংজানা গ্রামের শামীম মিয়ার ছেলে। আহত এখলাছ একই গ্রামের গিয়াস উদ্দিনের ছেলে।
এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, চেংজানা ও আটিগ্রাম একই ইউনিয়নের পাশাপাশি গ্রাম। গতকাল বিকেলে সাহিতপুর বাজারে ইমরান হাসানের সঙ্গে আটিগ্রামের সুমন মিয়ার একটি বিষয় নিয়ে কথা–কাটাকাটি হয়। পরে স্থানীয় লোকজন তাঁদের উভয়কেই থামিয়ে দেয়। পরে গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে সুমন মিয়া বাজারের অটোস্ট্যান্ড এলাকায় ইমরানকে দেখে চড়াও হয়। এ ঘটনা দেখে চেংজানা গ্রামের এখলাছ মিয়া এগিয়ে এলে সুমন ও তাঁর লোকজন উভয়ের ওপর হামলা চালিয়ে আহত করেন। স্থানীয় লোকজন তাঁদের উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক ইমরানকে মৃত ঘোষণা করেন। এদিকে ইমরানের মৃত্যুর খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে চেংজানা গ্রামবাসীর মধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয়।
সংবাদ পেয়ে কেন্দুয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মঈন উদ্দিন খন্দকার, কেন্দুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কাজী শাহ নেওয়াজ সহ প্রশাসনের ঊধ্বর্তন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করেন।
ওসি কাজী শাহ নেওয়াজ আজ শুক্রবার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। এব‍্যাপারে আইনানুগ ব‍্যাবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন‍্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

আরো পড়ুন