আমিরাতে সিলেট বিভাগ উন্নয়ন পরিষদের খাদ্য সহায়তা প্রদান

এস এ সাদিক

 

সংযুক্ত আরব আমিরাতে অবস্থানরত সিলেটের প্রবাসী বাংলাদেশিরা যে কোন দুর্যোগ মোকাবেলায় ঐক্যবদ্ধ ভাবে বিপর্যস্ত মানুষের পাশে থেকে কাজ করে যাবে।

করোনা প্রাদুর্ভাবে বিপাকে পড়া প্রবাসী বাংলাদেশীদের খাদ্য সহায়তা দিতে গিয়ে সিলেট বিভাগ উন্নয়ন পরিষদের নেতৃবৃন্দরা একথা বলেন।

গত কয়েকদিন ধরে আমিরাত প্রবাসী বাংলাদেশীদের অন্যতম সংগঠন সিলেট বিভাগ উন্নয়ন পরিষদের পক্ষ থেকে করো’না প্রাদুর্ভাবে বিপাকে পড়া প্রবাসী বাংলাদেশীদের খাদ্য সহায়তা দেওয়া হচ্ছে।

সিলেট বিভাগ উন্নয়ন পরিষদের বর্তমান আহ্বায়ক কমিটির সদস্য ও সাবেক কমিটির সিনিয়র সহ-সভাপতি বিশিষ্ট সংস্কৃতি ব্যাক্তিত্ব গীতিকবি আজাদ লালনের উদ্যোগে ও আহবানে চলমান পরিস্থিতিতে বিপাকে পড়া প্রবাসী বাংলাদেশিদের সহায়তা দেওয়ার জন্য সংগঠনটির পক্ষ থেকে এই খাদ্য দ্রব্য বন্টন কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়।

আজাদ লালনের এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে বিপাকে পড়া প্রবাসী বাংলাদেশিদের মাঝে খাদ্যদ্রব্য বন্টন কর্মসূচি বাস্তবায়নে এগিয়ে আসেন সিলেটের কৃতি সন্তান এনআরবি ব্যাংকের সম্মানিত চেয়ারম্যান , বাংলাদেশ বিজনেস কাউন্সিল দুবাইয়ের সম্মানিত প্রেসিডেন্ট, ওয়ার্ল্ড এনআরবি সিআইপি এসোসিয়েশনের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মাহতাবুর রহমান নাসির ।এনআরবি ব্যাংকের ডাইরেক্টর, সিলেট বিভাগ উন্নয়ন পরিষদ সংযুক্ত আরব আমিরাতের সাবেক সভাপতি , হাসান শাহিন পারফিউম গ্রুপের চেয়ারম্যান মানবিক ব্যক্তিত্ব হাজী আব্দুল করিম।

বিপাকে পড়া প্রবাসী বাংলাদেশিদের খাদ্য সহায়তা দিতে এ দুই কৃত্বিমান ব্যক্তি ছাড়াও যারা আর্থিক সহায়তা প্রদান করেন তারা হলেন সিলেট বিভাগ উন্নয়ন পরিষদের আহবায়ক জাওয়াদুর রহমান, আলহাজ্ব এম এ মুহিত, হাজী আবদুর রব, বদরুল ইসলাম চৌধুরী, কাচা উদ্দিন কাচা, সালে আহমদ, রহমত আলী সোয়েব , মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী, মোহাম্মদ ইব্রাহিম, মোঃ আশিক মিয়া, হাজী ফখরুল ইসলাম, মাসুক উদ্দিন ইউসুফ, লুৎফর রহমান, হাবিবুর রহমান চুন্নু, শামীম আহমেদ, হাজী শফিকুল ইসলাম, শেখ মুজিবুর রহমান, আব্দুল মান্নান, সাংবাদিক লুৎফুর রহমান, আফজাল হোসাইন, ক্বারী আবু রোকেয়ান, চুন্নু মিয়া, রাসেল আহমেদ, আফজাল সাদেকিন, মোহাম্মদ হিরা মিয়া, মোঃ হেলাল মিয়া, সিরাজুল ইসলাম নওযাব, আব্দুল আউয়াল, মীর আহমদ হোসাইন, কামরান আনোয়ার, মাহাতাব উদ্দিন, রুজেল তরফদার, এনাম চৌধুরী, আজাদ লালন, শেখ লুৎফর রহমান।

সংগঠনের উপদেষ্টা পরিষদ, কার্যকরী পরিষদ, ও সাধারণ সদস্যরা মিলে মোট ৩৭ জন ব্যক্তি কোভিট ১৯ এ ক্ষতিগ্রস্ত প্রবাসী বাংলাদেশীদের খাদ্য সহায়তা দেয়ার জন্য(৪০৯৭৫)দিরহাম আর্থিক অনুদান প্রদান করেন।

সিলেট বিভাগ উন্নয়ন পরিষদের সিনিয়র কর্মকর্তা গীতিকবি আজাদ লালন বলেন করো’না মহামারির কারণে আজ প্রবাসী বাংলাদেশিরা চরম বিপাকে রয়েছে। দীর্ঘদিন কর্মহীন থাকার ফলে প্রবাসীরা আর্থিক ও খাদ্য সংকটে রয়েছে। আমাদের উপলব্ধি হয়েছে মানুষকে বাঁচাতে হবে। মানুষের পাশে দাঁড়াতে হবে। মনে হয়েছে আমরা সকলে মিলে চেষ্টা করলে এই প্রয়াসে সফল হব।

তিনি বলেন আমাদের সবচাইতে বড় সাহস ছিল আল হারামাইন গ্রুপের চেয়ারম্যান , সারা বিশ্বের প্রবাসী বাংলাদেশিদের অন্যতম নেতা , সিলেটের কৃতি সন্তান মাহতাবুর রহমান নাসির কে আমরা সাথে পেয়েছি । তাছাড়া আমাদের সংগঠনের নেতা দানবীর হাজী আব্দুল করিম যাকে মানবিক কর্মকাণ্ডে উদার প্রাণ মানুষ হিসেবে আমরা সকলেই চিনি। এ দু,জন ছাড়াও এই সংগঠনের প্রাণ জাওয়াদুর রহমান, বদরুল ইসলাম চৌধুরী, হাজী আব্দুর রউফ,কাঁচা উদ্দিন কাঁচা সহ সংগঠনের অনেক মানবিক ও হৃদয়বান ব্যাক্তিরা আমাদের সাথে ছিলেন। ফলে আমাদের মানুষের পাশে দাঁড়াতে কোন সমস্যা ছিল না। আমরা সংগঠনের ৩৭ ব্যক্তির সহায়তায় বিপাকে পড়া ১২০০ প্রবাসী বাংলাদেশীকে এবারের মতো সহয়তা করতে পেরেছি। প্রয়োজনবোধে নেতৃবৃন্দকে সাথে নিয়ে আমরা পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণ করব।

উল্লেখ্য সিলেট বিভাগ উন্নয়ন পরিষদ সংযুক্ত আরব আমিরাতের একটি জনকল্যাণমূলক সংগঠন হিসেবে পরিচিত। সুদীর্ঘ ইতিহাসে সংযুক্ত আরব আমিরাতে বিভিন্ন সামাজিক সেবামূলক কার্যক্রমে এই সংগঠনের ভূমিকা অপরিসীম। বিশেষ করে সিলেটবাসীকে ঐক্য বদ্ধ এবং সামাজিক দায়বদ্ধতা পূরণের মাধ্যমে একটি সুশৃঙ্খল ও সৃজনশীল সংগঠনে পরিণত করেছে সিলেট বিভাগ উন্নয়ন পরিষদ কে।

সে ধারাবাহিকতায় এই সংগঠনটি বিপর্যস্ত মানবতার জন্য কাজ করে যাচ্ছে । সংগঠনের কর্মকর্তাদের ধারাবাহিক উদ্যোগ ইতিমধ্যে প্রশংসিত হয়েছে সামাজিক এবং রাষ্ট্রীয় ভাবে।

আরো পড়ুন