আমিরাতে জুমার খুতবা ও নামাজ ১০মিনিটের মধ্যে শেষ করার নির্দেশ

আরব আমিরাত প্রতিনিধি

সংযুক্ত আরব আমিরাতে পবিত্র জুমার খুতবা ও নামাজ ১০ মিনিটের মধ্যে শেষ করতে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে দেশটির ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান ওয়াকাফ। বলা হয়েছে, করোনাভাইরাসের প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থার অংশ হিসেবে শুক্রবারের খুতবা সংক্ষিপ্ত করা হবে। সাধারণত খুতবা ২০ মিনিটের মধ্যে সমাপ্ত হয়।

এদিকে সংযুক্ত আরব আমিরাতের শরিয়া কাউন্সিল ফতোয়া জারি করে বলেছে, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত কিংবা এমন আশঙ্কায় রয়েছেন তাদের জুমার নামাজ আদায়ে মসজিদে না আসা উত্তম।

দেশটির রাজধানী আবুধাবির শিল্পনগরী ঐতিহ্যবাহী সাপ্তাহিক মোচ্ছাফ্ফা বাজার (বাংলা বাজার) সাময়িক বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। এখন থেকে বৃহস্পতি ও শুক্রবারে বাংলা বাজার বসবে না।

অত্যাধুনিক চিকিৎসার পাশাপাশি জনগণের মধ্যে সচেতনতা সৃষ্টির জন্য কাজ করে যাচ্ছে আমিরাতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। এর আগে আগামী ৮ তারিখ থেকে দেশটির সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এক মাসের বন্ধ ঘোষণা করা হয়।
এখন পর্যন্ত ৩ হাজার ২৮৫ জনের প্রাণ কেড়েছে করোনাভাইরাস। বিভিন্ন দেশে ৯৫ হাজার ৪৮১ জন এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। এছাড়া চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে ৫৩ হাজার ৬৮৮ জন।

শুধুমাত্র চীনের মূল ভূখণ্ডেই আক্রান্তের সংখ্যা ৮০ হাজার ৪৩০ এবং মৃত্যু হয়েছে ৩ হাজার ১২ জনের। চীনের বাইরে সবচেয়ে বেশি আক্রান্তের সংখ্যা দক্ষিণ কোরিয়ায়। সেখানে এখন পর্যন্ত ৬ হাজার এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে এবং মারা গেছে ৪০ জন।

অপরদিকে চীনের বাইরে সবচেয়ে বেশি মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে ইতালিতে। সেখানে এখন পর্যন্ত এই ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৩ হাজার ৮৯ এবং মৃত্যু হয়েছে ১০৭ জনের।
অপরদিকে, মধ্যপ্রাচ্যের দেশ ইরানেও এই ভাইরাসের প্রকোপ দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে। দেশটিতে এখন পর্যন্ত ২ হাজার ৯২২ জন এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে এবং ৯২ জনের মৃত্যু হয়েছে।

জাপানে নোঙ্গর করা প্রমোদতরী ডায়মন্ড প্রিন্সেসের ৭০৬ যাত্রী এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে এবং মারা গেছে ৬ জন। অপরদিকে, দেশটির বিভিন্ন স্থানে এই ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৩৩১ এবং মৃত্যু হয়েছে ৬ জনের।

ফ্রান্সে এই ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ২৮৫ এবং মৃত্যু হয়েছে ৪ জনের। জার্মানিতে এখন পর্যন্ত ২৬২ জন এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। স্পেনে এই ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ২২৮ এবং মৃত্যু হয়েছে ২ জনের।

যুক্তরাষ্ট্রে এখন পর্যন্ত ১৪৯ জন এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে এবং মারা গেছে ৯ জন, সিঙ্গাপুরে আক্রান্তের সংখ্যা ১১২, হংকংয়ে ১০৩ জন আক্রান্ত হয়েছে এবং মারা গেছে ২ জন, সুইজারল্যান্ডে আক্রান্তের সংখ্যা ৯৩, যুক্তরাজ্যে ৮৭, নরওয়েতে ৫৯, কুয়েতে ৫৬, বাহরাইনে ৫২, সুইডেনে ৫২, অস্ট্রেলিয়ায় আক্রান্তের সংখ্যা ৫০, মৃত্যু ২, মালয়েশিয়ায় আক্রান্ত ৫০, থাইল্যান্ডে ৪৩ জন আক্রান্ত হয়েছে এবং ১ জন মারা গেছে।

অপরদিকে, তাইওয়ানে আক্রান্তের সংখ্যা ৪২ এবং মৃত্য ১, নেদারল্যান্ডসে আক্রান্ত ৩৮, ইরাকে আক্রান্ত ৩৫ এবং মৃত্যু ২, কানাডায় আক্রান্ত ৩৪, অস্ট্রিয়ায় ২৯, ভারতে ২৯, আরব আমিরাতে ২৮, আইসল্যান্ডে ২৬, বেলজিয়ামে ২৩, আলজেরিয়ায় ১৭, সান মেরিনোতে আক্রান্ত ১৬ এবং মৃত্যু ১, ভিয়েতনামে আক্রান্ত ১৬, ডেনমার্কে ১৫ জন এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে।

অপরদিকে, ইসরায়েলে আক্রান্ত ১৫, লেবাননে ১৫, ওমানে ১৫, ম্যাকাউতে ১০, ক্রোয়েশিয়ায় ১০, ইকুয়েডরে ১০, গ্রিসে ৯, কাতারে ৮, ফিনল্যান্ডে ৭, বেলারুসে ৬, আয়ারল্যান্ডে ৬, মেক্সিকোতে ৬, পর্তুগালে ৬, রোমানিয়ায় ৬, পাকিস্তানে ৫, সেনেগালে ৪, ফিলিপাইনে আক্রান্ত ৩ এবং মৃত্যু ১, আজারবাইজানে আক্রান্ত ৩, ব্রাজিলে ৩, জর্জিয়ায় ৩, নিউজিল্যান্ডে ৩, রাশিয়ায় ৩ এবং চিলিতে আক্রান্তের সংখ্যা ৩।

মিসরে আক্রান্ত ২, এস্তোনিয়ায় ২, ইন্দোনেশিয়ায় ২, সৌদি আরবে ২, হাঙ্গেরিতে ২, আফগানিস্তানে ১, আন্দোরে ১, আর্মেনিয়ায় ১, কম্বোডিয়ায় ১, ডোমিনিকান প্রজাতন্ত্রে ১, জর্ডানে ১, লাটভিয়ায় ১, লিথুনিয়ায় ১, লুক্সেমবার্গে ১, মোনাকোতে ১, মরক্কোতে ১, নেপালে ১, নাইজেরিয়ায় ১, উত্তর মেসিডোনিয়ায় ১, সান মেরিনোতে ১, সৌদি আরবে ১, শ্রীলঙ্কায় ১, তিউনিসিয়ায় ১ এবং ইউক্রেনে ১ জন এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে।

আরো পড়ুন