আমাকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন করবেনা না

মৃত্যুর আগের মুক্তি যোদ্ধা ইসমাইল হোসেনের চিঠি

নিজস্ব প্রতিনিধি: পেটে লাথি মেরেছে ওরা, আমাকে যেনো রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন করা না হয় – (মুক্তিযুদ্ধা ইসমাইল হোসেন) জীবন মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে হঠাৎ যদি আমার মৃত্যু হয়, আমাকে যেন রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন না করা হয়। কারণ এসিল্যান্ড, ইউএনও, এডিসি, ডিসি যারা আমার ছেলেকে চাকরিচ্যুত, বাস্তুচ্যুত করে পেটে লাথি মেরেছে, তাদের সালাম-স্যালুট আমার শেষ যাত্রার কফিনে চাই না। ভুল-ত্রুটি ক্ষমা করিও।

চিঠিতে লিখে যাওয়া অসিয়ত অনুযায়ী, বৃহস্পতিবার রাষ্ট্রীয় মর্যাদা (গার্ড অব অনার) ছাড়াই মুক্তিযোদ্ধা মো. ইসমাইল হোসেনকে দাফন করা হয়েছে।

এ অবস্থায় জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানের শেষ বিদায়ের সময় বাজেনি বিদায়ের সুর। জানাজার পূর্ব মুহূর্তে ম্যাজিস্ট্রেট মহসীন উদ্দিনের নেতৃত্বে পুলিশ প্রশাসনের চৌকশ দল গার্ড অব অনার জানাতে গিয়ে ব্যর্থ হয়ে ফিরে আসে। এমনকি মুক্তিযোদ্ধা মো. ইসমাইল হোসেনের মরদেহ জাতীয় পতাকায় আচ্ছাদিত করা হয়নি।

আরো পড়ুন