আজ চরফ্যাশন সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ দুলাল স্যার এর শেষ কর্মদিবস

আমিনুল ইসলাম, চরফ্যাশন প্রতিনিধি৷৷

আমিনুল ইসলাম, চরফ্যাশন প্রতিনিধি৷৷

আজ দ্বীপজেলা ভোলার শ্রেষ্ঠ বিদ্যাপিঠ চরফ্যাসন সরকারি কলেজের স্বনামধন্য অধ্যক্ষ কায়সার আহমেদ দুলাল স্যার এর শেষ কর্মদিবস৷ সরকারি বিধিমালা অনুযায়ী দীর্ঘ ৩৩ বছর ৪ মাস বর্ণাঢ্য কর্মজীবন শেষে অবসরে যাচ্ছেন তিনি৷

বৃহস্পতিবার (৩১ ডিসেম্বর) শেষ দায়িত্ব পালনের মধ্য দিয়ে চরফ্যাশন সরকারি কলেজের চাকুরী জীবন থেকে বিদায় নিতে যাচ্ছেন এক মানুষ গড়ার কারিগর৷ তিনি কর্মদক্ষতা সম্পন্ন অধ্যক্ষ, সাংবাদিক, কবি, সাহিত্যিক, সাংস্কৃতিক, রাজনৈতিক, সামাজিক, সৃজনশীল ও সাদামনের মানুষ হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছেন পুরো ভোলা জেলায়৷

জানা যায়, ডিসেম্বর মাস জুড়ে কলেজের প্রতিটি বিভাগ থেকে আলাদা আলাদা ভাবে প্রিয় স্যারকে বিদায় সংবর্ধনা দিয়েছেন শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারী ও ছাত্র ছাত্রীগণ৷

অধ্যক্ষ কায়সার আহমেদ দুলাল তার প্রতিক্রিয়ায় বলেন, আমি একজন আদর্শ শিক্ষকের সন্তান৷ চরফ্যাশন সরকারি কলেজের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষ ও সাবেক জাতীয় সংসদ সদস্য মিয়া মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম এর হাতে ১৯৮৭ সালে প্রভাষক হিসেবে অত্র কলেজে যোগদান করেছি৷ তারই সুযোগ্য পুত্র ভোলা-৪ আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য আবদুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব এর সার্বিক সহযোগিতায় অধ্যক্ষ হিসেবে যোগদানের পরে দৃষ্টিনন্দন ক্যাম্পাস, অনার্স কোর্স চালু, অনার্স ভবন, ছাত্রী নিবাস, শহীদমিনার নির্মাণ, মুক্তিযোদ্ধা কর্নার, বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল, শিক্ষার মানোন্নয়ন, শিক্ষার পরিবেশ বজায় রাখা, জাতীয় ও আন্তর্জাতিক দিবস উদযাপন, বর্ষবরণ, নবীন বরন, বার্ষিক ক্রিড়া প্রতিযোগা, নিয়মিত জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনের মাধ্যমে ক্লাস শুরু করা এবং কলেজের ৫০ বছর পূর্তিতে সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন সহ নানা কর্মকান্ডে নিজেকে প্রতিটা মুহূর্ত যুক্ত রেখেছি৷ এর পরেও বলবো অত্র কলেজ থেকে আমি যা পেয়েছি হয়তোবা এর তুলনায় আমি কিছুই করতে পারিনি আর সে সময়ও সরকারের বিধিমালা আমাকে দেয়নি৷ এ বেলায় সকলের নিকট আমার এবং আমার পরিবারের জন্য দোয়া কামনা করছি৷

এ বিষয়ে অধ্যক্ষ মনির আহমেদ শুভ্র বলেন, একজন প্রকৃত মানুষ তার মেধা, সততা, দক্ষতা, পরিশ্রম ও নৈতিকতার সঙ্গে কাজ করে যে সফল হতে পারে কায়সার আহমেদ দুলাল স্যার তার বড় উদাহরণ৷ তিনি অবসরের কারনে আজ বিদায় নিলেও চরফ্যাশন সরকারি কলেজ তার সকল স্থাপনা, সৃষ্টি ও উদ্যোগের মধ্যে স্মরণ রাখবে অনন্তকাল৷

আরো পড়ুন