অভয়নগরে ২ শত পিচ ইয়াবাসহ চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার-

স্বীকৃতি বিশ্বাসঃ

যশোর জেলার বিভিন্ন উপজেলায় বিশেষ করে শিল্প শহর নওয়াপাড়াতে মাদক ব্যবসায়ীরা মোটরসাইকেলে করে এলাকার বিভিন্ন মোড়ে মোড়ে গিয়ে মাদকদ্রব্য পৌঁছে দেয়। মাদকদ্রব্যের সহজ লভ্যতার কারণে কিশোর – কিশোরী,যুবকযুবতীসহ সকল শ্রেণীর লোকদের মধ্যে মাদক গ্রহনের প্রবণতা লক্ষ্য করা যাচ্ছে।মাদকদ্রব্য গ্রহনের ফলে কিশোর- কিশোরীসহ সকল শ্রেণীর জনগনবিপথগামী হচ্ছে।তাঁর প্রভাবে নওয়াপাড়া ও পার্শ্ববতী এলাকা গুলোতে যেমন চাঁদাবাজি, ছিনতাই, হয়রানীসহ বিভিন্ন অপরাধমূলক কাজ বেশি সংগঠিত হচ্ছে তেমনি মাদকাসক্ত ব্যক্তিদের কারণে পারিবারিক অশান্তি বৃদ্ধি পাচ্ছে এবং মাদক গ্রহন করতে করতে এক সময় এই কিশোরী ও কিশোরীও মাদকদ্রব্য চোরাচালানের সাথে সম্পৃক্ত হয়ে পড়ছে। মাদকাসক্ত এই কিশোরীরা এলাকায় ছোট ছোট কিশোর- কিশোরী গ্যাং গড়ে তুলছে এবং সাধারণ জনগণকে জিম্মি করে হয়রানি করছে ও টাকাপয়সা হাতিয়ে নিচ্ছে।

দীর্ঘদিন যাবত যশোর জেলাকে মাদকমুক্ত করার লক্ষ্যে কাজ করছে যশোর জেলা পুলিশ।তারই ধারাবাহিকতায় যশোরের গোয়েন্দা বিভাগের একটি বিশেষ টীম অভয়নগর থানা এলাকার কোদলা গ্রামে অভিযান পরিচালনা করে চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী ১. মোঃ রিপন খান(৩০) পিতা- মোঃ সবুর খান গ্রাম- কোদলা মিস্ত্রিপাড়া,থানা-অভয়নগর,জেলা- যশোরকে ২ শত পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট ও মাদক সরবরাহের কাজে ব্যবহৃত মোটরসাইকেলসহ গ্রেফতার করেন। উদ্ধারকৃত মাদকদ্রব্যের বাজারমূল্য ৬০ হাজার টাকা।

উল্লেখিত বিষয়ে অভয়নগর থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের আওতায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

আরো পড়ুন