অভয়নগরে বেআইনী ভাবে কাঠ পুড়িয়ে কয়লা তৈরি, খোঁজ রাখছে না উপজেলা প্রশাসন

যশোর প্রতিনিধি:- অভয়নগর উপজেলার সিদ্দিপাশা ইউনিয়নের বিভিন্ন জায়গায় নতুন উদ্যমে কাঠ পুড়িয়ে কয়লা তৈরি হচ্ছে।
বেশ কয়েকবার পরিবেশ অধিদফতর ও উপজেলা প্রশাসন চুল্লিগুলো ভেঙে দেয়। সম্প্রতি ফের নতুন করে কাঠ পোড়ানোর কাজ শুরু হয়েছে। যার ফলে একদিকে বন হচ্ছে উজাড়; অপরদিকে পরিবেশ হচ্ছে দূষিত।
উপজেলার সিদ্দিপাশা ইউনিয়নের বিভিন্ন স্থানে রয়েছে কাঠকয়লা তৈরির চুল্লি। এই চুল্লিতে দেদারছে পোড়ানো হচ্ছে কাঠ। ফলদ ও বনজ গাছ কেটে সাবাড় করা হচ্ছে। বিশেষ করে ওই ইউনিয়নের ধুলগ্রাম ও সোনাতলা এলাকার গাছ কাটা হচ্ছে।
নাম প্রকাশ না করার শর্তে স্থানীয় কয়েকজন জানান, পরিবেশ দূষণের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন এলাকাবাসী। অসাধু চক্রের ভয়ে মুখ খুলতে পারছেন না কেউ। তাদের মতে, প্রশাসন যদি জোরালো ভূমিকা রাখে, তাহলে হয়তো এই গাছ কেটে কয়লা তৈরি বন্ধ করা যাবে।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, এই এলাকায় প্রায় ৫০টির অধিক চুল্লিতে অবৈধ কাঠ পুড়িয়ে কয়লা তৈরির কাজ চলছে। প্রতিটি চুল্লিতে গড়ে ১৫ দিনে প্রায় ২৫০ মণ কাঠ কয়লা তৈরির কাজে পুড়ছে।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আমিনুর রহমান জানান, বিষয়টি সম্পর্কে তিনি অবগত নন। খোঁজ নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবেন।
যদিও খুলনা পরিবেশ অধিদপ্তরের পরিচালক সাইফুল ইসলাম জানান, বিষয়টি তার নজরে এসেছে। অচিরেই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
আরো পড়ুন